কুমিল্লায় আবারো ছিনতাই : গ্রেফতার ৩

মোট দেখেছে : 63
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

তানভীর দিপু:

কুমিল্লায় যাত্রীবেশে ছিনতাইয়ের অভিযোগে এক নারীসহ ৩ ছিনতাইকারীকে আটক করা হয়েছে। গতকাল কুমিল্লার সদর দক্ষিণের পদুয়ারবাজার থেকে সিএনজি অটোরিকশায় শহরে আসার পথে আশ্রাফপুর এলাকায় আয়শা আক্তার নামে এক যাত্রীর স্বর্ণের চেইন, মোবাইল ও নগদটাকা ছিনতাই করে পালানোর চেষ্টা করে একই সিএনজিতে যাত্রীবেশে থাকা ৪ ছিনতিাইকারী। ঘটনার পরপরই স্থানীয়দের চেষ্টায় এক নারী ছিনতাইকারীসহ ৩ জনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার দুপর দেড়টায় সদর দক্ষিণ থানার অন্তর্গত মধ্যম আশ্রাফপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। সিএনজিতে নারী ও পুরুষ ৪ জনের সমন্বয়ে একটি ছিনতাইকারী দল ছিলো। এর মধ্যে মাসুদ(৩২), আইনুল ইসলাম(২৬) ও সালমা আক্তার সুমা(২০) নামে ৩ ছিনতাইকারীকে আটক করা হয়েছে। অপর আরেক নারী ছিনতাইকারী পালিয়ে যায়।

ছিনতাইয়ের শিকার আয়শা আক্তারের ছেলে রিমন গতকালই বাদী হয়ে সদর দক্ষিণ মডেল থানায় মামলা দায়ের করে।  ঘটনাস্থল থেকে ওই নারীর স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। আয়শা আক্তার ঢাকা থেকে কুমিল্লায় নেমে পদুয়ারবাজার থেকে সিএনজি অটোরিবিকশায় উঠেন। তাঁর বাড়ি নগরীর ঢুলিপাড়ায়। 

প্রত্যক্ষদর্শী একটি বেসরকারি কোম্পানির কর্মকর্তা রাশেদুর রহমান রিগান জানান, চাকরি সুবাদে মধ্যম আশ্রাফপুর এলাকায় ছিলাম। এমন সময়ে দেখলাম কুমিল্লামুখী একটি চলন্ত সিএনজি থেকে পঞ্চাশোর্ধ এক নারীকে নামিয়ে দেয়া হচ্ছে। নেমে যাওয়া নারীর কান্নাকাটি দেখে সন্দেহ হলে স্থানীয় এক দোকানদারসহ সিএনজিটিকে থামানোর চেষ্টা করি। লোকজন দেখে ছিনতাইয়ের সাথে জাড়িত থাকা সিএনজি চালক ইউটার্ন করে বিপরীত দিকে চলে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় আরো লোকজন এসে তাদেরকে আটকে ফেলে। এময় উৎসুক জনতার ভিড়ে এক ছিনতাইকারী পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা ছিনতাইকারীদের গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দেয়। পরে জানতে পারি সিএনজি চালক, তার সহযোগী, দুই নারীসহ একটি দল ঢাকাফেরত ওই নারীর স্বর্নালংকার ও টাকাপয়সা নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর দক্ষিণ মডেল থানা ওসি দেবাশীষ চৌধুরী জানান, এক নারী ছিনতাইকারীসহ ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। এই চক্রের আরো একনারী পালিয়ে গেছে। ছিনতাই চক্রের সাথে সিএনজি অটোর চালকও জড়িত থাকতে পারে তার ধারনা।

তিনি বলেন, এই ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীরা বর্তমানে থানা হাজতে আছে। রোববার তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হবে।

উল্লেখ্য, এমাসের শুরুতেই কুমিল্লার বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাইয়ের ঘটনায় ফেসবুকে তোলপাড় হলে পুলিশের তৎপরতায় তা কিছুটা কমে আসে। গতকাল দিনে দুপুরে এই ছিনতাইয়ের ঘটনা ফেসবুকে প্রকাশ পেলে আবারো জনমনে আতংক তৈরী হয়।




আরো দেখুন

সর্বশেষ ফটো