বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার কবি

মোট দেখেছে : 26
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

তানভীর দিপু:

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিুবুর রহমান মননে-হৃদয়ে কবিতা লিখেছেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা এনে দিয়ে তিনি তাঁর কবিতা প্রকাশ করেছেন। তিনি হয়েছেন স্বাধীনতার কবি। গতকাল সন্ধ্যায় সরকারি মহিলা কলেজের মিলনায়তনে এই মহান কবি স্মরণে রচিত কবিতার শতকণ্ঠে আবৃত্তি ও কবিতা পাঠ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতীয় সংগীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শুরু হয়। সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ জামাল নাসেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যান- শ্রম ও জনশক্তি মন্ত্রনালয়ের  অতিরিক্ত সচিব মোঃ শহীদুল আলম এনডিসি, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আমির আলী চৌধুরী, ভিক্টোরিয়া কলেজের বর্তমান অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ রুহুল আমিন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন বলেই আমরা বাংলাদেশে স্বাধীন সংস্কৃতি চর্চা করতে পারছি। আমাদের স্কুলে কলেজে শিক্ষার্থীরা প্রাণ ভরে কবিতা পাঠ ও আবৃত্তি করতে পারছে। সে বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতার চেতনায় যে কবিতা চর্চার বিকাশ তা এমন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কুমিল্লাবাসী ধারণ করে। কুমিল্লার সন্তান শহীদ ধীরেন্দ্র নাথ দত্তের হাত ধরেই আমরা বাংলাভাষা পেয়েছি-আর কুমিল্লারই আরেক সন্তান মুক্তিযোদ্ধ রফিকুল ইসলাম বাংলাভাষা ও ভাষা আন্দোলনের  আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি এনে দিয়েছে। প্রধান অতিথি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ যে মহান কবিতা- সে কবিতার জন্যই আমরা স্বাধীণ জাতি ও দেশ হিসেবে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পেরেছি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত সচিব মোঃ শহীদুল আলম এনডিসি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিুবুর রহমানও একজন মহান কবি। তিনি কবিতা লিখেছেন মননে ও হৃদয়ে আর বাংলাদেশের স্বাধীনতা এনে দিয়ে তিনি সেই কবিতার প্রকাশ করেছেন। তিনি স্বাধীনতার কবি। বক্তব্যের আগে অতিরিক্ত সচিব মোঃ শহীদুল আলমের আহ্বানে উপস্থিত সবাই ভাষাসৈনিক শহীদ ধীরেন্দনাথ দত্ত স্মরণে দাঁিড়য়ে একমিনিট নিরবতা পালন করেন।

অনুষ্ঠানে অনলাইনে কবিতা পাঠ করে শুনান কৃষি মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক হাসানুজ্জামান কল্লোল। এছাড়া ভিক্টোরিয়া কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আমির আলী চৌধুরী কবিতা পাঠ করে শুনিয়েছেন উপস্থিত সকলকে। ভিক্টোরিয়া কলেজের বর্তমান অধ্যক্ষ প্রফেসর রুহল আমিন  বাংলাদেশ-বঙ্গবন্ধু ও কুমিল্লা প্রসঙ্গে গঠনমূলক আলোচনা করে।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা দেশাত্ববোধক এবং বঙ্গবন্ধুকে রচিত নিয়ে অন্তত ১০ কবিতার অংশবিশেষ শতকণ্ঠে আবৃত্তি করেন। এছাড়া একক আবৃত্তি করেন আবৃত্তিকার বদরুল হুদা জেনু, কাজী মাহতাব সুমন, মাইশা সিদ্দিকা মম। একক সংগীত পরিবেশন করেন শিউলী রায় এবং নৃত্য পরিবেশন করেন আসমাউল হুসনা প্রভী।

আরো দেখুন

সর্বশেষ ফটো